hamburgerIcon
login
STORE

VIEW PRODUCTS

ADDED TO CART SUCCESSFULLY GO TO CART

Article Continues below advertisement

  • Home arrow
  • Baby Sleep Management arrow
  • কিভাবে শিশুকে 40 সেকেন্ডের মধ্যে ঘুম পাড়ানো যায় arrow

In this Article

    কিভাবে শিশুকে 40 সেকেন্ডের মধ্যে ঘুম পাড়ানো যায়

    Baby Sleep Management

    কিভাবে শিশুকে 40 সেকেন্ডের মধ্যে ঘুম পাড়ানো যায়

    3 November 2023 আপডেট করা হয়েছে

    Article Continues below advertisement

    প্রত্যেক নতুন বাবা মায়ের কাছে নিজের সন্তানকে ঘুম পাড়ানো অন্যতম বড় চ্যালেঞ্জ। ঘর অন্ধকার করে রাখা বা নরম কম্বলে জড়িয়ে রাখা ইত্যাদি বিভিন্ন কৌশলে শিশুর ঘুমের ব্যবস্থা করার হলেও, খানিকক্ষণ পরেই তারা উঠে পড়ে। যাইহোক, এখানে দেওয়া কিছু টিপস এবং কৌশল নতুন বাবা মায়েরা অনুসরণ করতে পারেন যাতে তাদের ছোট্ট সোনার ঘুম ভালো হয়।

    কেন আপনার শিশুর জন্য ঘুম গুরুত্বপূর্ণ?

    বিভিন্ন স্বাস্থ্য সংক্রান্ত কারণে প্রতিটি শিশুরই ভালো ঘুম হওয়া প্রয়োজন। শিশুদের মনোযোগ, ভাষা এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণের মতো জটিল ক্ষমতা বিকাশে ঘুম সহায়তা করে। শিশুর ঘুমানোর সময়, তার জ্ঞান আহরণের ক্ষমতা, বিভিন্ন ক্রিয়া এবং তার প্রতিক্রিয়া শিক্ষা ইত্যাদি মস্তিষ্কের কার্যকলাপ ক্ষমতা উন্নত হয়। লেপারসনের পরিভাষায়, ঘুম শিশুর মস্তিষ্কের বিকাশে সাহায্য করে এবং ঘুমের অভাবে মেজাজ খারাপ হয়।

    গবেষণায় দেখা গেছে যে ঘুমের সময় শিশুর স্নায়ুর চারপাশে মাইলিনের স্তর তৈরি হয়। তাছাড়াও, ঘুমের সময় মস্তিষ্কের উভয় গোলার্ধের মধ্যে সংযোগও শক্তিশালী হয়। অতএব, প্রতিটি নবজাতকের জন্য দিনে 14-17 ঘন্টা ঘুমানো প্রয়োজন।

    আপনার শিশুকে এক মিনিটেরও কম সময়ে ঘুম পাড়ানোর টিপস

    যদি বাবা মা আশ্চর্য হয়ে ভাবেন কিভাবে একটি শিশুকে 40 সেকেন্ডের মধ্যে ঘুম পাড়ানো যায়, নিম্নলিখিত টিপস তাদের সাহায্য করবে।

    1. টিস্যু পেপারের ট্রিক

    শিশুকে দ্রুত ঘুম পাড়ানোর জন্য, বাবা মা শুকনো টিস্যু পেপার ব্যবহার করতে পারেন। এই কাগজের টুকরোটি শিশুর মুখের উপর আলতো করে এবং বারবার বোলাতে থাকুন যতক্ষণ না তাদের চোখ বন্ধ হয়। এজন্য ভেজা টিস্যু ব্যবহার করা উচিত নয়, কারণ তাতে শিশুটি আরও অস্বস্তি এবং বিরক্তবোধ করবে।

    Article continues below advertisment

    2. জল প্রবাহের শব্দ

    শিশুরা বৃষ্টি এবং জল প্রবাহের শব্দ পছন্দ করে। এটি তাদের শান্ত করে এবং কিছুক্ষণের মধ্যে ঘুম পাড়িয়ে দেয়। তার মানে এই নয় যে শিশুকে ঘুম পাড়ানোর জন্য তাকে খোলা কলের কাছে নিয়ে যেতে হবে। সন্তানের ঘুম না আসা পর্যন্ত তার কাছে জল প্রবাহ বা বৃষ্টির রেকর্ডিং চালানো যেতে পারে।

    3. হোয়াইট নয়েজ ব্যবহার

    মায়ের গর্ভে থাকাকালীন শিশুর কানে যে আওয়াজ শোনা যায় তাকে বলে হোয়াইট নয়েজ। অতএব, এই শব্দটি তার পরিচিত এবং স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক, তাই সহজেই তাদের ঘুম পাড়াতে পারে। হোয়াইট নয়েজ মেশিন নামে এই শব্দ উৎপন্নকারী অসংখ্য মেশিন বাজারে পাওয়া যায়। অনেক ক্ষেত্রে শিশুর মনিটরিং ডিভাইসের সাথেও হোয়াইট নয়েজ মেশিন সংযুক্ত পাওয়া যায়।

    মজার কথা, হোয়াইট নয়েজ তৈরি করার জন্য কেউ ওয়াশিং মেশিন বা হেয়ার ড্রায়ারও ব্যবহার করতে পারেন। এই শব্দ শিশুকে শান্ত করে এবং তারা এক মিনিটের মধ্যে ঘুমিয়ে পড়বে।

    4. শিশুকে আরামদায়ক অবস্থায় রাখুন।

    শিশুকে আরামদায়কভাবে বিছানায় রাখার চেষ্টা করুন যাতে তারা দ্রুত ঘুমিয়ে পড়তে পারে। বাচ্চাকে ক্রিব বা দোলনার সমতল, শক্ত সারফেসে শোয়ান। নিশ্চিত করুন যে তাদের মাথা এবং ঘাড় সমান তলে আছে এবং তারা সহজেই মাথা নড়াচড়া করতে পারছে।

    5. বাচ্চার শরীরে আলতোভাবে চাপড় দিন

    কোনও শিশুর ঘুমোতে অসুবিধা হচ্ছে বুঝতে পারলে বাবা-মা তাকে আলতো করে তুলে নিয়ে তাদের কপালে এবং পিঠে হাল্কা হাতে চাপড় দিতে থাকুন। এতে শিশু শান্ত হয় এবং ঘুমিয়ে পড়ে। যাইহোক, কোনও বাচ্চার ক্ষেত্রে নিয়মিত এই অভ্যাস এড়িয়ে চলা উচিত, নতুবা এটাই তার ঘুমানোর রুটিন হয়ে উঠবে।

    Article continues below advertisment

    6. দোলনা এবং সোয়াড্ল‌

    দোলনা এবং সোয়াড্ল‌ শিশুদের নিরাপদ বোধ করায় এবং সহজেই ঘুম পাড়িয়ে দেয়। এগুলি ব্যবহারের সময়, নিশ্চিত করুন শিশুর চারপাশে একটি নরম কম্বল রাখা আছে এবং দোলানোর সময় কম্বলটি বুকের কাছে রাখতে হবে। এবং বাচ্চা ঘুমিয়ে পড়লে, ওকে বিছানায় নিয়ে নিন।

    7. বডি লোশন

    গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে ল্যাভেন্ডার জাতীয় লোশন শিশুকে সহজে ঘুম পাড়াতে সাহায্য করে এবং বাচ্চাদের ঘুম পাড়ানোর আগে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই বেবি লোশনগুলি বাচ্চাদের ত্বক শিথিল করে, ঘুমের অনুভূতি নিয়ে আসে।

    8. ঘুমপাড়ানি গান

    গবেষকরা মনে করেন মানুষের কথা বলার ছন্দ এবং গতি শিশুকে শান্ত করে এবং তাদের প্রয়োজনীয় ঘুমে সহায়তা করে।

    আপনার বাচ্চার ঘুম পাড়ানোর সময় যে জিনিসগুলি এড়িয়ে চলা উচিত

    নিঃসন্দেহে শিশুর জন্য ঘুম খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু প্রত্যেক বাবা-মায়ের আরোও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় মাথায় রাখতে হবে যা শিশুকে ঘুম পাড়ানোর সময় এড়িয়ে চলা উচিৎ।

    1. ঘুমানোর নির্দিষ্ট সময় না থাকা

    শিশুর ঘুমের নির্দিষ্ট সময় থাকা উচিত যাতে তারা নিজের বডি ক্লকের হিসেবে ঘুমায়। অত্যধিক ঘুমের ফলে শিশুরা বদমেজাজী হয়ে উঠতে পারে কারণ বেশি ঘুম তাদের অলস করে তোলে এবং তারা তখন শুধু বিশ্রামেই থাকতে চায়। তাই ঘুমের সময়সূচী থাকা গুরুত্বপূর্ণ, এবং বাবা-মাকে নিশ্চিত করতে হবে যে তাদের সন্তান প্রয়োজনের বেশি ঘুমোচ্ছে না।

    Article continues below advertisment

    2. ঘুমের সংকেতগুলিতে কম মনোযোগ দেওয়া

    একটি শিশুর ঘুমের বিভিন্ন ইঙ্গিত থাকে এবং তাদের শিশুর সঠিক ঘুম হচ্ছে তা নিশ্চিত করার জন্য বাবা মাকে তার প্রতি মনোযোগ দিতে হবে। উদাহরণ স্বরূপ, খাওয়ার পর একটি শিশুর বিরক্তিকর আচরণ ঘুমের ইঙ্গিত হতে পারে এবং তাদের শান্ত করার জন্য দ্রুত ঘুম পাড়ানোর প্রয়োজন হতে পারে।

    শিশুর ঘুমে সহায়তার জন্য এবং কিভাবে একটি শিশুকে 40 সেকেন্ডের মধ্যে ঘুম পাড়ানো যায় সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার জন্য এই টিপসগুলি প্রত্যেক বাবা মায়ের জানা উচিত। বাবা মায়ের উচিত নিজের সন্তানের নিয়মিত শোওয়ার রুটিন এবং ঘুমের সময়সূচী নিশ্চিত করার জন্য এই টিপসগুলি একে অপরকে জানানো।

    Baby Lotion for Kids - 200 ml

    Baby Swaddling Wrapper | 4-in-1 All Season AC Blanket cum Sleeping Bag for Baby 0-6 Months

    ₹ 229

    4.4

    (553)

    5749 Users bought

    Is this helpful?

    thumbs_upYes

    thumb_downNo

    Written by

    Satarupa Dey

    Get baby's diet chart, and growth tips

    Download Mylo today!
    Download Mylo App

    RECENTLY PUBLISHED ARTICLES

    our most recent articles

    Mylo Logo

    Start Exploring

    wavewave
    About Us
    Mylo_logo

    At Mylo, we help young parents raise happy and healthy families with our innovative new-age solutions:

    • Mylo Care: Effective and science-backed personal care and wellness solutions for a joyful you.
    • Mylo Baby: Science-backed, gentle and effective personal care & hygiene range for your little one.
    • Mylo Community: Trusted and empathetic community of 10mn+ parents and experts.